• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭
Bangla Bazaar
Bongosoft Ltd.

বাকেরগঞ্জে ধর্ষণ মামলার আসামি ৬ বছর পর কারাগারে


নিজস্ব প্রতিবেদক | বাংলাবাজার প্রকাশিত: জানুয়ারি ২২, ২০২১, ১০:১৯ এএম বাকেরগঞ্জে ধর্ষণ মামলার আসামি ৬ বছর পর কারাগারে
প্রতীকি ছবি

বরিশালের বাকেরগঞ্জ থানার একটি ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামি ৬ বছর পর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে আত্মসমর্পন করেছে। বৃহস্পতিবার সে আত্মসমর্পন করে জামিনের আবেদন করলে বিচারক আবু শামীম আজাদ তাকে কারাগারে প্রেরনের নির্দেশ দেন। 

তার নাম তৌকির সন্যামত। সে ওই উপজেলার পশ্চিম ভাতশালা গ্রামের আনছার সন্যামতের ছেলে।

মামলার অভিযোগের উদ্বৃতি দিয়ে ট্রাইব্যুনালের বেঞ্চ সহকারী আজিবর রহমান জানান, তৌকির সন্যামত সহ ৩ জনের বিরুদ্ধে ২০১৪ সালের ৭ জুন বাকেরগঞ্জ থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন বরিশাল সদরের চড়বাড়িয়া গ্রামের এক গ্রাম পুলিশের মেয়ে।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, প্রেমের সম্পর্কের সুবাদে পটুয়াখালীর বাউফলের বগা ইউনিয়নের রাজনগর গ্রামের সাইফুল ইসলাম সজিবের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ২০১৪ সালের ৭ জুন সজিবের সাথে বাকেরগঞ্জের ফরিদপুর ইউনিয়নের ডিসি লঞ্চ ঘাটে বেড়াতে যায় সে। ওইদিন রাতে পশ্চিম ভাতশালা গ্রামের তৌকির সন্যামত ও পূর্ব ভাতশালা গ্রামের আউয়াল রাড়ি তাকে অপহরণ করে নির্জন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে। 

এ ঘটনায় নির্যাতিতা বাদী হয়ে ৩ জনের বিরুদ্ধে বাকেরগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু  নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. মাছুম তালুকদার একই বছরের ৫ আগস্ট ৩ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে এই মামলার অভিযোগপত্র দেন।

আদালত ২০১৪ সালের আগস্টে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির নির্দেশ দেন। দীর্ঘ ৬ বছর পর এক আসামি তৌকির সন্যামন আদালতে আত্মসমর্পন করলে বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরনের নির্দেশ দেন।

বাংলাবাজার / এফ এ