• ঢাকা
  • শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭
Bangla Bazaar
Bongosoft Ltd.

কিয়ামত


বাংলাবাজার ডেস্ক | বাংলাবাজার প্রকাশিত: অক্টোবর ১০, ২০২০, ১২:৪৬ পিএম কিয়ামত
প্রতীকি ছবি

১। হাদিস: হজরত আবু হোরায়রা (রা.) হতে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ (স.) বলেছেন, কিয়ামতের দিন সূর্য ও চন্দ্রকে উল্টান হবে। (বোখারি, মুসলিম)

২। হাদিস: হজরত আবু হোরায়রা (রা.) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, দুটি শিঙ্গা ফুঁকের মধ্যে ৪০ ব্যবধান থাকবে। তারা জিজ্ঞেস করল, হে আবু হোরায়রা! ৪০ দিন, না ৪০ বছর? বললাম, আমি জানি না। অতঃপর আল্লাহ আকাশ হতে বৃষ্টি বর্ষণ করবেন।

তাতে যেরূপ শাক-সবজি হয়, তদ্রুপ হবে। মানুষের শরীরের সব অংশই ধ্বংসপ্রাপ্ত হবে। একটি হাড় মাত্র ধ্বংস হবে না। তা মূল হাড়।

কিয়ামতের দিন তা হতে সৃষ্টির পত্তন হবে। অন্য বর্ণনায়, মাটি সব আদম সন্তানকে তার মূল হাড় ব্যতীত খেয়ে ফেলবে। তা হতেই তার সৃষ্টি হবে এবং তার গঠন হবে। (বোখারি, মুসলিম)

৩। হাদিস: হজরত আবু হোরায়রা (রা.) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, কিয়ামতের দিন আল্লাহ দুনিয়াকে মুষ্ঠির মধ্যে এবং আকাশকে দক্ষিণ হস্তে ধারণ করে বলবেন, আমি রাজা। দুনিয়ার রাজাগণ কোথায়? (বোখারি, মুসলিম)

৪। হাদিস: হজরত আবু সাঈদ খুদরি (রা.) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, যখন শিঙ্গায় ফুৎকারকারী শিঙ্গা মুখে নির্দেশের জন্য কান পেতে রয়েছে এবং কপাল নিচু করেছে, তখন আমি কিরূপে আমোদ-প্রমোদ করব?

তারা বলল, আপনি আমাদেরকে কী করতে আদেশ দেন? তিনি বললেন, ‘আল্লাহ আমাদের জন্য যথেষ্ট এবং আল্লাহই রক্ষাকারীরূপে উত্তম।’ তখন এটাই বলবে। (তিরমিজি)

৫। হাদিস: হজরত আয়েশা (রা.) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ (স.)-কে জিজ্ঞেস করলাম, যেদিন এ দুনিয়া অন্য দুনিয়াতে এবং আকাশসমূহ রূপান্তরিত হবে তখন মানবগণ কোথায় থাকবে? তিনি বললেন, পুলসিরাতে। (মুসলিম)

৬। হাদিস: হজরত আবদুল্লাহ বিন উমর (রা.) হতে বর্ণিত। রাসূলুল্লাহ (স.) বলেছেন, আল্লাহ কিয়ামতের দিন আসমানসমূহকে ঘুরাবেন। অতঃপর তিনি তাদেরকে ডান হস্তে রেখে বলবেন, আমি রাজা। কোথায় নরপতিগণ?

কোথায় অহংকারীগণ? অতঃপর বাম হস্ত দ্বারা পৃথিবীসমূহকে ঘুরাবেন। অন্য বর্ণনায় : তিনি অন্য হস্ত দ্বারা তাদেরকে ধরবেন এবং বলবেন, আমি রাজা। কোথায় অত্যাচারীগণ? কোথায় অহংকারীগণ? (মুসলিম)